আবার এসেছে বৈশাখ মাস

–কাজী মোরশেদ আলম–

বছর শেষে মনোমুগ্ধকর পরিবেশে আবার এসেছে আমাদের মাঝে বৈশাখ মাস। আমরা এই দেশে শান্তির সাথে বসবাস করে আসছি। আমাদের মাঝে আছে খুব নিরাপত্তার বেষ্টনী। নতুন সাঝে আমরা সেজেছি। মনের মাঝে আনন্দ উচ্ছাস হচ্ছে প্রবাহিত যা খুব স্বস্তিদায়ক। আমরা আনন্দ উৎসব করবো, নফল নামাজ পড়বো। ফরজ নামজতো আমরা নিয়মিত পড়েই যাচ্ছি। এই বৈশাখ মাসে থাকবে মনে দীপ্ত শপথ, কুসংস্কার দুর করবো। মনের মাঝে থাকবে যতো বদ তা আমরা অবশ্য  দোর্দদ- প্রতাপে দুর করবো। খুব পরিচ্ছন্ন রাখবো আমাদের এ পাশ ও পাশ। মিলে মিশে এক সাথে করবো কলরব। কুসংস্কৃতির বিরুদ্ধে থাকবো প্রচ-ক্ষোভ। কোনো মতেই বদ সংস্কৃতিকে আমরা গ্রহণ করবোনা। স্বস্তিদায়ক কলরবে আমরা উঠবো মেতে। ঐক্য মমতা থাকবে মনে আর দুব হবে সব লোভ।

বোশেখ হলো বাংলা বছরের প্রথম মাস। এ মাসে আকাশে জমে প্রচ- কালো মেঘ। হঠাৎ করে শুরু হয়ে যায় মারাত্মক ঝড় বাদল যা কাল বৈশাখী হিসেবে পরিচিত। প্রবল বাতাসে গাছ পাল নড়বড় হয়ে যায়। গাছে পালার ডালা ভেঙ্গে পড়ে। অনেক ক্ষেত্রে গাছ গাছালি বেঁকে যায়। পুরাতন ঘরবাড়িগুলো বাতাসের জোরে ধাবিত হয়। রাস্তায় মানুষ তেমন যায় না দেখা। ঝড়ের কবলে উড়তে থাকে গাছ পালা ও বাড়ি ঘর।  কালবৈশাখীর প্রবল জড়ে বাইরে যায় না হাটা। বাড়িতে বসে থাকি চুপটি করে। হঠাৎ ঠাডার শব্দে গা ঝিম ঝিম করে। আর প্রচ- বজ্রঘাতে কি যেনো ঘটে যায় ভয় লাগে আচমকা মনের মাঝে। হঠাৎ করে বিদ্যুৎ থাকেনা। অন্ধকার হয়ে যায় চারিপাশ। আর রতেতো বিদ্যুৎ একেবারে থাকে না। বৈশাখীর তা-ব লীলায় ভয়ে অস্থির থাকি। প্রচ- বাতাস আর ঠাডার শব্দে বুক করে দুরু দুরু। চারিদিকের পরিবেশটা হয়ে যায় অন্যরকম। রাস্তায় মানুষ নাই। বাজারে অনেক দোকান বন্ধ করে ফেলেছে। আকাশে মেঘের আনোগোনা আর বাতাসে অস্থির হয়ে পড়েছে মানুষ। ঘরের জানালা বন্ধ।

এমন পরিবেশে গ্রাম্য কিছু বালক বালিকা আছে তারা বৈশাখীর তা-ব লীলাকে ভয় করেনা। অবিশ্রান্ত বর্ষণকে উপেক্ষা করে আম কুড়াতে বের হয়ে যায় ঘরের বাইরে। আম গাছের নিচে আম কুড়ায় মহা আনন্দে। অবশেষে অনেক আম নিয়ে আসে ঘরে। এই কালবৈশাখী ঝড়ে দেখতে পাই কয়েক স্থানে ঘর বাড়ি উড়িয়ে নিয়ে যায়। গাছ গাছালি নুয়ে পড়ে ঝড়ের আঘাতে। পত্র পত্রিকায় ও অনলাইনে খবর পাই ঝড়ের প্রচ- তা-ব লিলায় মানুষ মারা যাচ্ছে। মানুষের লাশ এদিক ওদিক পড়ে থাকতে দেখা যায়। টিভিতে দেখতে পাই স্কুলের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে অনেক দুরে। নৌকা ও লঞ্চ ডুবির খবর পাই। মৃতদেহ দেখতে পাই। মৃত দেহ দেখতে মৃতদের আত্মীয় স্বজন আসে দল বেধে। কান্না ধ্বনিতে আকাশ বাতাস প্রকম্পিত হয়ে ওঠে। কাল বৈশাখীর ঝড়ে নদীতে নৌকা ও লঞ্চ ডুবিতে সব মানুষকে খুঁজে পাওয়া যায় না। ভেসে যায় অনেক দুরে। তিন বা চার দিন পর খোঁজ পাওয়া যায় অনেক দুরে কয়েকটি লাশের। নতুন বছরের সূচনা হয় বোশেখ মাস আগমনের মধ্য দিয়ে। নতুন সাজে সজ্জিত হয় দেশের মানুষ। চারিদিকে মহা আনন্দ ধ্বনি দেখতে পাই।

বটের মুলে মানুষের ভিড়, হৈহুল্লোড় ধ্বনি মনকে করে আনন্দিত। জড়াজীর্ণকে ধুয়ে মুছে পরিবেশ হয় নতুন সাজে সজ্জিত। নতুন ভাবে যাত্রা শুরু হয় আমাদের। সত্যিই ভালো লাগে বৈশাখ মাস। বিরাটকার বৃক্ষমুলে বসে বোশেখ মেলা। মাঠে ময়দানে চলে ঐতিহ্যবাহি খেলাধুলা, হাডুডু খেলা, লাঠি খেলা, কানামাছি এ ছাড়াও আরো অনেক খেলা হয়।  নতুন বছরে নতুন শপথ আমরা থাকবো মিলে মিশে। আনন্দমুখর পরিবেশে ভ্রাত্যবন্ধনে করবো বসবাস। সফল করবো আমাদের এ বাংলাদেশ। হঠাৎ করে ঝড় তুফানে মনটা বিষিন্ন হয়ে যায়।

যাহোক বছরের প্রথম মাস বৈশাখ মাস। এ দিনের প্রথমে শপথ নিবো সামনের দিনগুলোতে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে কাটাবো. দেশের মাঝে আসতে দেবোনা হৈ চৈ রাজনৈতিক দুরদর্শা। রাজনীতির মাঝে থাকবে সৎ সততা। মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়ে দেশ পরিচালানা করবো। জোর করে ক্ষমতায় আসবো না। মানুষ যাকে সমর্থন করবে তার অধীনে চলবে দেশ। ইবাদত বন্দেগীতে লিপ্ত থাকবো। দেশকে ভালোবাসাবো, দেশের মানুষকে ভালোবাসবো। দেশের মাঝে সৃষ্টি হবে না বেদনা বিধুর পরিবেশ। আসুন আমরা ভালো হয়ে ভালো থাকি। সমাজের মাঝে আছে যতো অবৈধ কার্যকলাপ তা থেকে দুরে থাকি। অনেক ফায়দা হবে আমাদের।

কাজী মোরশেদ আলম (এম.এ.বি.এড, ডি.এইচ,এম. এস) প্রধান সম্পাদক, সাপ্তাহিক হাজীগঞ্জ ও হৃদয়ে চাঁদপুর। মোরশেদ মিডিয়া সাহিত্য গবেষণা কেন্দ্র, গ্রাম-মোহনপুর (কাজী বাড়ি), থানা-দেবিদ্বার, জেলা-কুমিল্লা।

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

September 2021
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  

আর্কাইভস