কচুয়ায় সিজার করার সময় মাথায় মারত্মক আঘাত পেয়ে নবজাতক শিশুর রক্তক্ষরন হয়ে মৃত্যু

কচুয়া প্রতিনিধি:

কচুয়ার কেয়ার ডিজিটাল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নার্সের ভুল চিকিৎসায় এক নবজাতক শিশুর মৃত্যু । বুধবার সকালে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সিজারিং করার সময় মাথায় মারত্মক আঘাত পেয়ে নবজাতক শিশুটির রক্তক্ষরন হয়ে মারা যায় বলে পরিবার দাবি করেন।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মতলব দক্ষিন উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের সোহাগ হোসেনের স্ত্রী রেশমা আক্তার এর প্রসব ব্যাথা দেখা দিলে রেশমা আক্তারের মা জাকিয়া বেগম কেয়ার ডিজিটাল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দায়িত্বরত নার্স সুবর্ণা পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে সিজারিং করে।

রেশমা আক্তারের বাবা হুমায়ূন মজুমদার জানান, ডাক্তার দিয়ে সিজারিং করার কথা থাকলেও কেয়ার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অদক্ষ নার্স দিয়ে আমার মেয়ের সিজারিং করার ফলে নবজাতকের মাথা মারত্মকভাবে কেটে যায়। তিনি এ মৃত্যুর জন্য নার্সকে দায়ী করেন এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি জানান ।

পরে তারা নবজাতককে দ্রুত কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনার পর অভিযুক্ত নার্স সুবর্না ডায়াগনস্টিক সেন্টার ছেড়ে গা ডাকা দেয়।
কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পা কর্মকর্তা ডা. সালাউদ্দিন মাহমুদ বলেন, অভিজ্ঞ ডাক্তার ব্যতিত কোনো নার্স সিজারিং করার নিয়ম নেই। কেয়ার হাসপাতালে নবজাতক মৃত্যুর বিষয়টি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জেলা সিভিল সার্জনকে অবগত করা হবে।

ইউএনও দীপায়ন দাস শুভ বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার অভিযোগ করলে বিষয়টি তদন্তপূর্বক অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেয়ার ডিজিটাল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক পঙ্কজ দেবনাথের বক্তব্য জানতে তার মোবাইলে কয়েকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এদিকে কচুয়া কেয়ার ডিজিটাল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এর আগেও কয়েকটি ভুল চিকিৎসায় মা ও শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় ডায়াগনস্টিক সেন্টার ভাংচুর করে ক্ষুব্ধ পরিবার। অভিলম্বে তদন্ত পূর্বক কেয়ার ডিজিটাল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

September 2020
M T W T F S S
« Aug    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  

আর্কাইভস