চাঁদপুর নৌপুলিশ ও জেলেদের ব্যাপক সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া আহত ১৩ গুলি ৪৭ রাউন্ড নিক্ষেপ

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুর নৌপুলিশ ও জেলেদের সাথে ব্যাপক সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া আহত ১৩ গুলি ৪৭ রাউন্ড নিক্ষেপ। সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের ছিরায়চর ও শিলায়েরচর নামক স্থানে নৌপুলিশ ও জেলেদের সাথে ব্যাপক সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ ১৩জন আহত হয়েছে।

মারমুখি জেলেদেরকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য এবং পুলিশ সদস্যরা আত্মরক্ষায় প্রায় ৪৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৭জন জেলেকে আটক করে। আজ ২৫ অক্টোবর ২০২০ রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় মা ইলিশ রক্ষায় নৌ-পুলিশের সদস্য অভিযান চালিয়ে রওনা হলে পথিমধ্যে ইলিশ শিকারে বাঁধাদিলে এই ঘটনা ঘটে।

আহত পুলিশ সদস্যরা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হেলাল উদ্দিনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নৌ-এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

আহত জেলেরা হলেন, পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হেলাল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) ফরিদা ফারভীন, পুলিশ পরিদর্শক মুজাহিদুল ইসলাম, নায়ক ইকবাল হোসেন, ইলিয়াছ হোসেন, শাহ্ আলম, কনস্টবল আল মামুন, ফেরদৌস শেখ, আল-আমিন, কাউছার হোসেন, মোনায়েম আহম্মেদ ও প্রসনজিৎ।

নৌ-পুলিশের এডিশনাল এসপি (মিডিয়া) ফরিদা পারভীন বলেন, আজ মা ইলিশ রক্ষায় তারা ঢাকা থেকে অভিযানে নামে। ওই সময় আকাশ পথে ইয়ারফোর্সের একটি হেলিকপ্টার ছিলো। রাতে শরীয়তপুর এলাকায় অভিযান শেষে ঢাকায় ফেরার পথে ঘটনাস্থলে আসলে কমপক্ষে ৩ থেকে ৪ হাজার জেলেকে শত শত নৌকা অবৈধবাবে মা ইলিশ শিকার করতে দেখা যায়।

এ সময় নৌ পুলিশ সদস্যদের মধ্যে বেশ কয়েকজিন স্পীডবোট দিয়ে জেলেদের কয়েকটি নৌকা ও জাল আটক করে। পরে হাজার হাজার জেলে অতর্কিতভাবে পুলিশের উপর হামলা চালায়। পুলিশ আত্ম রক্ষায় তাৎক্ষনিক ৪৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি নিক্ষেপ করে জেলেদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে আহত পুলিশ সদস্যদেরকে দ্রুত চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতলে নিয়ে আসা হয়।

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

November 2020
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  

আর্কাইভস