ফরিদগঞ্জের ভাটিরগাঁও গ্রামের নূরু ও রাজিব ১ গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও ভিডিও করায় র‌্যাবের জালে ধরা

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি: 

ফরিদগঞ্জের ভাটিরগাঁও গ্রামের নূরু ও রাজিব ১ গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও ভিডিও করায় র‌্যাবের জালে ধরা। গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিওচিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের অর্থ দাবি করা অভিযুক্ত দুই ধর্ষক র‌্যাবের জালে ধরা পড়েছে। র‌্যাব-১১ (সিপিসি-২) কুমিল্লার একটি টিম অভিযুক্ত দুইজনকে আটক করে শুক্রবার সকালে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে।

আটককৃতরা হলো: ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার ভাটিরগাঁও গ্রামের জহিরুল ইসলাম নূরু (৩০) ও আব্দুর রহমান রাজিব (২৮)। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে গতকাল শুক্রবার সকালে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের পর আটককৃত দুই অভিযুক্তকে চাঁদপুর আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, চলতি বছরের ৯ জুলাই বৃহস্পতিবার ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার রুদ্রগাঁও গ্রামের ওই গৃহবধূকে তার বসতঘরে একা পেয়ে অভিযুক্ত জহিরুল ইসলাম নূরু ও আব্দুর রহমান রাজিব জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। গোপনে ধর্ষণের ডিভিওচিত্রও ধারণ করে। পরবর্তীতে ওই ভিডিওচিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূর কাছে মোটা অংকের অর্থ দাবি করে।

এতে বাধ্য হয়ে ওই গৃহবধূ ১৪ অক্টোবর বুধবার র‌্যাব-১১ (সিপিসি-২) কুমিল্লার কাছে লিখিত অভিযোগ করলে তারা তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযুক্তদের মধ্যে আবুল কালামের ছেলে আব্দুর রহমান রাজিব (২৮)কে কুমিল্লা থেকে ও হারুন খানের ছেলে জহিরুল ইসলাম নূরু (৩০)কে ফরিদগঞ্জের ভাটিরগাঁও থেকে আটক করে।

এরপর ঘটনার শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে শুক্রবার সকালে থানায় মামলা (নং ২৫, ধারা- ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি আইন ৮/১১/৮(২)/৮(৩)তৎসহ ৩৭৯/৫০৬ পেনাল কোড তৎসহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সং/০৩) এর০৭/৯(৩)/৩০, তাং ১৬.১০.২০২০) দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শহিদ হোসেন জানান, ঘটনার শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে মামলা দায়েরের পর তারা প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপের জন্যে তাকে চাঁদপুর প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া র‌্যাব কর্তৃক আটককৃত অভিযুক্ত দুই ধর্ষণকারীকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

October 2020
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

আর্কাইভস