হাইমচর ব্রীজে স্লুইস গেট না থাকায় উপজেলাবাসীর দুর্দশা বিভিন্ন বাড়িতে পানি আটকা

মো. সাইফুল ইসলাম: 

হাইমচরে ব্রীজে স্লুইস গেট না থাকায় উপজেলাবাসীর দুর্দশা বিভিন্ন বাড়িতে পানি আটকা। বেড়িবাঁধের উপরে থাকা ব্রীজে স্লুইস গেট না থাকায় জোয়ারের পানিতে মৎস্য খামার, পানের বোরজ, ফসলী জমিনসহ মানুষজনের ঘর বাড়ি পানিতে তলিয়ে গিয়ে ক্ষতি হচ্ছে শতকোটি টাকার সম্পদ। দুর্দশাগ্রস্থ হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো।

হাইমচর উপজেলা পরিষদ থেকে স্লুইচ গেটের জন্য আবেদন করেও তিন বছরে নেয়া হয়নি কোন ব্যবস্থা। এছাড়া ব্রীজ দুটিতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বাঁধ নির্মানের কাজেও হচ্ছে ডিলেঢালা। তিন দিন অতিবাহিত হলেও এখনো হচ্ছে না বাঁধের কাজ। লোক দেখানো কাজ হচ্ছে বলেও মন্তব্য করছেন ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী।

মহজমপুর এলাকাবাসী জানান, এ ব্রীজের নিছ দিয়ে বৃষ্টির পানি বের হওয়ার একমাত্র জায়গা। এ খাল দিয়ে পানি এসে ব্রীজের নিচ দিয়ে বৃষ্টির পানি নদীতে চলে যায়। আবার জোয়ারের পানি এসে বেড়িবাঁধের ভিতরের গ্রাম গুলো প্লাবিত হয়। তাই এ ব্রীজের মুখে প্রয়োজন ছিল স্লুইস গেট। স্লুইস গেট না দিয়ে এখানে পানি উঠা নামার পথ একবারেই বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে।

হাইমচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফলতির কারণে হাইমচরবাসীর আজকের এ দুর্দশা। তিন বছর পূর্বে সিআইপি বেড়িবাঁধের ভিতরে দুইটি খালের মুখে স্লুইস গেইট দেয়ার জন্য আবেদন করার পরেও আজও নেয়া হয়নি কোন ব্যবস্থা। যার কারণে জোয়ারের পানি খালের ভিতরে দিয়ে প্রবেশ করে শত কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারি প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমাদের বরাদ্দ না থাকায় আমরা সঠিক সময়ে কাজ করতে পারি না। আমাদের যা বরাদ্দ আসে আমরা তাই করি। আমরা চেষ্টা করছি যত দ্রুত সম্ভব এ ব্রীজের মুখগুলো বন্ধ করার জন্য। স্লুইস গেটের জন্য আমরা আবেদন করেছি, অনুমোদন হলেই স্লুইস গেইট করা হবে।

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

October 2020
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

আর্কাইভস