হাজীগঞ্জে কৃষক না হয়েও বীজ যন্ত্রপাতি আত্মসাতের অভিযোগ” সংবাদটি দৃষ্টিগোচর

হাজীগঞ্জে কৃষক না হয়েও বীজ যন্ত্রপাতি আত্মসাতের অভিযোগ” সংবাদটি দৃষ্টিগোচর হয়। গত ১ জুন কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে প্রচারিত শিরোনাম ”হাজীগঞ্জে কৃষক না হয়েও বীজ যন্ত্রপাতি আতসাতের অভিযোগ” সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

হাজীগঞ্জ ১১নং হাটিলা পশ্চিম ইউনিয়নের পাতানিশ কৃষি ব্লকের ১৫ সদস্যর প্রধান হিসাবে কথিত কৃষক হিসাবে আমাকে অবহিত করা হয়েছে তা সঠিক নয়। আমি একজন পেশাদার কৃষক এবং আমাকে ব্লক প্রধান উল্লেখ করেছে।

তাছাড়া আমার পরিবারের ৬ জনকে ব্লকে অন্তভূক্তি করেছি তাও সঠিক নয়। এমনকি বীজ যন্ত্রপাতি ও প্রশিক্ষণ ভাতার টাকাসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার অর্থ আত্মসাতের যে অভিযোগ তোলা হয়েছে তাও ভিক্তিহীন।

আমি ইউনিয়ন পরিষদে একজন চা বিক্রেতা, এখানে কোন বীজ, সার বিক্রি করা হয় না, অথচ উল্লেখ করা হয়েছে বিক্রি করা হয় তা সম্পন্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। এছাড়া এসব কিছু উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কামাল হোসেন পাটওয়ারীর সাথে আতাত করে যে সুযোগ গ্রহন করেছি তা সম্পন্ন উদ্দেশ্য প্রনোদিত।

পাতানিশ বোরো ধান বীজ উৎপাদন কারী কৃষক দলের মূল ব্লক প্রধান আমি পরিষদের সামনে থাকি বিদায় স্যারকে সহযোগিতা কিেছ। অথচ উক্ত সংবাদে আমার বক্তব্যে যে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কামাল স্যার দোকানে বীজ উঠানোর অনুমতি দেওয়ায় তা কৃষকের মাঝে কিক্রি করে আসছি তাও সঠিক নয়।

আমি মনেকরি একটি মহল উদ্দেশ্যে প্রনোদিত হয়ে আমাকে এবং উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাকে হেয় করার লক্ষে সংবাদ কর্মীকে ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদটি পরিবেশন করেছে। আমি এ মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদের তীব্র নিন্দ্রা ও প্রতিবাদ জানাই। প্রতিবাদকারী মো. জহিরুল ইসলাম খান, পিতা: জয়নাল আবেদীন, গ্রাম: পাতানিশ, হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।

জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ খবর

দিনপঞ্জিকা

September 2021
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  

আর্কাইভস